পায়ে পায়ে Kurseong

IMG_20160730_191149118.jpgPocket পুরো গড়ের মাঠ, কাল salary হওয়ার কথা ছিল কিন্তু অজানা কারনে হয় নি কাজেই কম খরচে কাজ চালাতে হবে বাকি সময়। Driver দাদা Morgan House থেকে গাড়িতে করে আমাদের নীচে Kalimpong taxi standএ পৌঁছে দিল। Share jeepএ Driverএর পাশে বসে সুন্দর রাস্তা উপভোগ করতে করতে আমরা এসে গেলাম Jorebungalow.k2এখানে গাড়ি বদলে সোজা পৌঁছে গেলাম Kurseong tourist lodgeএ। চেক ইন করার সময় দেখলাম রেজিস্টার খাতায় আমার নাম এর ঠিক নিচেই  জনৈক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় চেক ইন করেছেন গাড়িয়া, Baishnabghata থেকে, মনে মনে ভাবলাম এখানে এসেও গাড়িয়ার লোকের সাথে মুলাকাত ! পরে dinning roomএ আবিষ্কার করলাম ইনি ডিরেক্টর কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় সঙ্গে আভিনেত্রী চূর্ণী গাঙ্গুলী এবং আরও দুজন, খাদ চলচিত্র বানানোর পর ছুটি কাটাতে এসেছেন একান্তে তাই আমরাও আর ভাব জমাতে গেলাম না।k5Kurseong tourist lodgeএর dinning roomটা অসাধারন, দূরের পাহাড়-জনবসতি, মেঘ জমে থাকা মাঝের খাদ, কুঁড়ে ঘারের মতন করে বানানো ছাদ, কাঠের ফ্লোর-দেওয়াল, দেওয়ালে borderদের আঁকা কার্শিয়ংএর ছবি আর রাস্তার দিকে একটা ছোট্ট বাগান। রুমগুলোও খুব সুন্দর করে সাজানো, cozy, viewও ভাল আর বাথরুমটাও ভাল আর একটা রুম হিটার লাগানো আছে যেটা নন-চারজেবেল।k8বিকালবেলা এই ছোট্ট কার্শিয়ংটা ঘুরে দেখলাম, শহরের বুক চিরে চলেছে রেললাইন, টয়ট্রেন চলছে ঘড়ি ধরে, কার্শিয়ং ষ্টেশনটাও কাছে, খুব সুন্দার একটা হিল-স্টেশন। এনারা শুধু ডিনারটাই রুমে serve করেন তাও চার্জ নিয়ে, যাই হোক রাতটা কেটে গেলো মজাতে।k7পরেরদিন breakfast খেয়ে বেডিয়ে পড়লাম সকাল সকাল। পায়ে হেঁটে আস্তে আস্তে ঘুরে নিলাম অপরূপ কার্শিয়ং, Eagle Craig, Dow Hill, Dow Hill Water Reservoir এবং Giddapahar View Point। কুয়াশা ঘেরা দিন, সূর্যর দেখা নেই, অনেকটা রাস্তা হলেও খুব কষ্ট হয় নি। হাঁটতে হাঁটতে যখনই ক্লান্ত হয়েছি পথের ধারে বসে পরেছি, দুচোখ ভরে প্রকৃতিকে অনুভব করে সতেজ হয়ে উঠেছি।k1দুপুরবেলা স্থানীয় একটা হোটেল  থেকে  থুকপা খয়ে নিয়েছি। দিন প্রায় শেষ হয়ে এল, মাঝে একপশলা বৃষ্টি আমাদের ট্রিপটাকে আরও স্পেশাল করে তুলল, সূর্যকে ডুবতে দেখতে দেখতে ফিরে এলাম হোটেলে।k6Darjeelingএ Mamataদির মিটিং আছে আজকে, সবাই উপরে যাচ্ছে, কেও আর শিলিগুড়ি যেতে চাইছে না,। অনেক ঘোরাঘুরি করে NJP তে যাওয়ার একটা গাড়িতে দুটো সিট বুক করতে পারলাম। কিন্তু হাতে দুঘণ্টা আরও আছে গাড়ি ছাড়ার আগে তাই আমরা দুটিতে মিলে গুটিগুটি কার্শিয়ং ষ্টেশনএ গিয়ে বসলাম। k4রবিবারএর দুপুরে সুন্দর ছোট্ট ষ্টেশনটা teenagersদের বেশ একটা hangout এর  যায়গা ,  ওদের  গল্প  শুনতে শুনতে আর ট্রেন দেখতে দেখতে আমাদের সময়টা সুন্দর কেটে গেল। এবার নীচে নামার পালা।

 

 

 

 

 

Advertisements

4 thoughts on “পায়ে পায়ে Kurseong

  1. Nicely narrated the beauty of kurseong & shared your practical test of nature,atmosphere & ambiance of lodge etc.The description is very touchy and
    felt as I reached there and enjoying the beauty of queen.My best wishes for you & ‘sharba’.

    Liked by 1 person

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s