Puri – 1

Badrinath, Dwarka আর Rameswaram, তিন ধাম দর্শন করে আসুন Puriতে, চার-ধাম পুরি করনে… বাঙ্গালিদের নষ্টালজিয়া পুরী। এটা আমার সপ্তমবার পুরী ভ্রমণ। গতবার ছিলাম পুরী হোটেলে, এবার আছি চক্রতীর্থ রোডে মডেল বীচের উপর হোটেল শঙ্কর ইন্টারনেশানাল। সকালে আর বের হলাম না, শেষ দুপুরে রোদ একটু পড়তে গিয়ে বসলাম সামনের বীচে, পুরী বীচের থেকে এখানে অপেক্ষাকৃত কম ভিড় এবং কম দূষণ।

1485910_673427386012871_802944836_o

পরের দিন আমরা লোকাল সাইট সিয়িং এ বেড়লাম, এবার আমরা হাতেগোনা পাঁচটা জায়গা ঘুরব কিন্তু সময় নিয়ে ভাল করে দেখবো। প্রথমে যাব অপূর্ব সুন্দর বীচ চন্দ্রভাগা। পুরী থেকে দূরত্ব তিরিশ কিলোমিটার সময় লাগবে প্রায় এক ঘণ্টা। শহর ছাড়ানোর পর রাস্তা বেশ সুন্দর, মাঝে একটা অগভীর অভয়ারন্ন্য পড়ে, মাঝে মাঝে হরিণ চোখে পড়বে, শুনেছি এখানে সন্ধের পর চুরি ছিনতাই হয়েছে অতীতে। ২০১০ সালে কোনারক থেকে এই রাস্তা ধরে পুরী অভিমুখে ফেরার সময় রাত প্রায় সাতটা বেজে গিয়েছিল, সেবার একটা সুমোতে পুরুষ ও মহিলা মিলে আটজন ছিলাম সঙ্গে দুই বছরের একটা বাচ্চা। অন্ধকার রাস্তায়ে অনিয়মিত গাড়ির হেডলাইট ছাড়া আর কোনো আলো ছিল না তার মধ্যে গাড়ি খারাপ হয়ে গেছিলো। প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা পর গাড়ি ঠিক হতে আমরা নিশ্চিন্ত হয়ে যাত্রা শুরু করি, সেবার বেশ ভয় পেয়েছিলাম। যাই হোক, এরপর যখন চন্দ্রভাগা বীচের কাছাকাছি  চলে আসবেন তখন রাস্তার সৌন্দর্য অন্যরকম রূপ নেবে। তখন রাস্তার বাঁদিকে চোখে পড়বে  casuarina আর ডানদিকে বালিয়াড়ির ফাঁকে ফাঁকে চোখে পড়বে আপাত দুরন্ত বঙ্গোপসাগর।

2012-12-08-382

পুরী বীচের থেকে অনেক সুন্দর আর নির্জন এই বীচ, যদিও প্রতি বছর মাঘ মাসের সাত তারিখ সূর্য দেবতাকে উৎসর্গ করে সাত দিনের ধর্মীয় মেলাতে খুব জন সমাগম হয়। কথিত আছে, ভগবান কৃষ্ণের পুত্র সাম্বা চন্দ্রভাগার তীরে সূর্য দেবতার আরাধনা করেছিলেন কুষ্ঠরোগ থেকে মুক্তি লাভের জন্য।

2012-12-08-360

এখান থেকে কোনারক মন্দির মাত্র তিন কিলোমিটার দূরে। কোনারকে যেতে গেলে গাড়ি বা বাস দূরে রাখতে হয়, সেখান থেকে অটো নিলে তিন মিনিট বা দুদিকে দোকানের মাঝ দিয়ে পায়ে চলার রাস্তা ধরে হেঁটে গেলে দশ মিনিট লাগবে। দূর থেকেই কোনারক মন্দির নজরে পড়বে, টিকিট কেটে ঢুকে পড়বেন ভিতরে, মনে হবে ইতিহাস আর শিল্পকলার মাঝে হারিয়ে যেতে।

432105_450438268311785_456697239_n

এখানে দুঘণ্টা কাটিয়ে আমরা চলে গেলাম উদয়গিরি, সেখানেও প্রায় ঘণ্টাখানেক ছিলাম। উদয়গিরির মতন খন্ডগিরি আমার কাছে ততটা আকর্ষনীয় না হওয়াতে এবং খন্ডগিরি আরও দুর্গম হওয়ার কারনে আমরা এখান থেকে সোজা dhouli উদ্দেশ্য বেড়িয়ে পরলাম । dhouli ghurte বেশি সময় লাগল না। এবার বাকি সুধু নন্দনকানন ঘোরা, দুপুর হয়ে যাওয়াতে আমরা মাঝপথে ভুবনেশ্বর শহরে থেমে KFC তে  খেয়ে নিলাম।

IMG_20151016_125824

নন্দনকানন অন্যান্য জ্যুলজিকাল পার্কের মধ্যে অনন্য তার কারন ১৯৮০ সালে এই চিড়িয়াখানার আপাত সাধারন এক বাঘ ও বাঘিনী মিলে দেশে প্রথম অসাধারন এক সাদা বাঘের জন্ম দেয়। অবশ্য এটা একটা জিনগত ত্রুটি, এই ধরনের প্রাণিদের albino বলে। এখনো দেশে সবথেকে বেশি সাদা বাঘের দেখা মেলে এখানেই। এছারাও নন্দনকানন দেশের প্রথম জ্যুলজিকাল পার্ক যে World Association of Zoos & Aquariums (WAZA) এর সদস্যপদ লাভ করেন। এছারাও ‘৯১ সালে দেশে প্রথম হোয়াইট টাইগার সাফারি এখানেই শুরু হয়। ৯৯০ একর জুড়ে প্রায় ১২২ প্রজাতির প্রানি আছে এখানে, তবে পায়ে চলে সব ঘোরা যায়। এখন অল্প দক্ষিণায় batary চালিত গাড়ি পাওয়া যায়  ভেতরে, তাতে করে আরামসে পুরটা ঘুরে নিন, অকারণে গাইড নেবেন না। আমরা পায়ে পায়ে ঘুরে নিলাম reptile park, amphibian enclosure, bird enclosure। কলকাতা চিড়িয়াখানা থেকে একবার লুপ্তপ্রায় মারমাসেট চুরি যাওয়াতে খুব খবর হয়ছিল। এখানে যখন আমরা এসে দাঁড়ালাম সেই  মারমাসেটএর enclosureএর সামনে তখন তাদের দেখাই পেলাম না, আচমকা খুব খুশি হয়ে গেলাম যখন একটা ছোট্ট মারমাসেটকে আবিষ্কার করলাম এই এক হাত সামনে, খুব ছোট্ট একটা প্রানি কিন্তু খুব cute. এরপর আমরা সাফারিগুল করলাম, খারাপ লাগলো না। সন্ধে হয়ে আসছিল, ৫টায় সব বন্ধ হয়ে যায় তাই আমরাও বেড়িয়ে আসলাম, ফিরে চললাম হোটেলএ।739866_511293448892933_1813468572_o

 

Advertisements

4 thoughts on “Puri – 1

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s